বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর ২০২২, ০৫:৫৫ পূর্বাহ্ন
ঘোষণা:
দেশের প্রতিটি জেলায় সাংবাদিক নিয়োগ চলছে।

কবে বন্ধ হবে কুষ্টিয়া মীর মোশারফ সেতুর টোল আদায়?

নিজস্ব প্রতিবেদক / ২৯১ বার পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : রবিবার, ২৪ জানুয়ারী, ২০২১, ৪:২৩ অপরাহ্ন

গণসময়.কম ॥ কুষ্টিয়ার মীর মোশারফ সেতুর ব্যয়ভার উঠবে কবে! আর কবে বন্ধ হবে টোল আদায়? সাধারন জনগণ এই প্রশ্নের সাথে এখন ক্ষোভ প্রকাশ করছে। কুষ্টিয়ার গড়াই নদীর উপর নির্মিত মীর মোশারফ হোসেন সেতুতে বিগত ১৭ বছর ধরে আদায় করা হচ্ছে টোল। বাস-ট্রাক, মাইক্রো, সিএনজি চালকদের নানা অভিযোগ। প্রথমদিকে ভ্যান, রিক্সা, সাইকেলের, কোন টোল না নিলেও বর্তমানে টোল নেয়া হচ্ছে।
এছাড়াও মোটরসাইকেলের টোল আগে ৫ টাকা হলেও বর্তমানে কুচক্র মহলের যোগসাজশে ১০ টাকা করে নেওয়া হচ্ছে। প্রতিটি যানবাহনের টোল বর্তমানে দ্বিগুণ। প্রতিদিন সকালে গ্রামের শতশত মানুষ বাইসাইকেল চালিয়ে কুষ্টিয়া বিআরবি ক্যাবল ফ্যাক্টরি, লাভলী টাওয়ার ও বিভিন্ন পেশায় শ্রমিকেরা বাইসাইকেল চালিয়ে জীবিকা নির্বাহের জন্য কাজে যায়। তাদের যাওয়া-আসা মিলে দশ টাকা করে ভাড়া দিতে হয়। এটা তাদের কাছে অনেক বড় কষ্টের হয়ে যায়।
এ বিষয়ে স্থানীয়রা বলেন এত বছর ধরেও কি সরকারের সেতুর ব্যয়ভার উত্তোলন হয়নি। মাহিন্দ্র ড্রাইভার শেখ শাহাদুল ইসলাম বলেন আমাদের উপর আর কতদিন চলবে জুলুম আমরা কি বিনা টোলে যাতায়েত করতে পারবো না।

এ বিষয়ে টোল ইজারাদার কাছে জানতে গেলে তারা এ সকল আনিতো অভিযোগ বিষয়ে মুখ খুলতে রাজি নন। তারা বলেন এ বিষয়ে আপনারা উর্দ্ধতন কর্মকর্তাদের সাথে কথা বলতে পারেন।কুষ্টিয়া মীর মোশারফ সেতুতে ১৭ বছর ধরে টোল আদায় হচ্ছে কবে বন্ধ হবে টোল আদায়।

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি।। কুষ্টিয়ার গড়াই নদীর উপর নির্মিত মীর মোশারফ হোসেন সেতুতে বিগত সতেরো বছর যাবত আদায় করা হচ্ছে টোল। বাস-ট্রাক, মাইক্রো, সিএনজি চালকদের নানা অভিযোগ। প্রথমদিকে ভ্যান, রিক্সা, সাইকেলের, কোন টোল না নিলেও বর্তমানে টোল নেয়া হচ্ছে।

এছাড়াও মোটরসাইকেলের টোল আগে ৫ টাকা হলেও বর্তমানে কুচক্র মহলের যোগসাজশে ১০ টাকা করে নেওয়া হচ্ছে। প্রতিটি যানবাহনের টোল বর্তমানে দ্বিগুণ। সকালবেলা গ্রামের শত শত মানুষ বাইসাইকেল চালিয়ে কুষ্টিয়া বিআরবি ক্যাবল ফ্যাক্টরি, লাভলী টাওয়ার ও বিভিন্ন ব্যবসা কাজে শ্রমিকেরা বাইসাইকেল চালিয়ে জীবিকা নির্বাহের জন্য কাজে যায়। তাদের যাওয়া-আসা মিলে দশ টাকা করে ভাড়া দিতে হয়। এটা তাদের কাছে অনেক বড় কষ্টের হয়ে যায়।
এ বিষয়ে স্থানীয়রা বলেন এত বছর ধরেও কি সরকারের সেতুর ব্যয়ভার উত্তোলন হয়নি। মাহিন্দ্র ড্রাইভার শেখ শাহাদুল ইসলাম বলেন আমাদের উপর আর কতদিন চলবে জুলুম আমরা কি বিনা টোলে যাতায়েত করতে পারবো না।

এ বিষয়ে টোল ইজারাদার কাছে জানতে গেলে তারা এ সকল আনিতো অভিযোগ বিষয়ে মুখ খুলতে রাজি নন। তারা বলেন এ বিষয়ে আপনারা উর্দ্ধতন কর্মকর্তাদের সাথে কথা বলতে পারেন।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন


এ জাতীয় আরো খবর...
এক ক্লিকে বিভাগের খবর