বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর ২০২২, ০৬:৩৪ পূর্বাহ্ন
ঘোষণা:
দেশের প্রতিটি জেলায় সাংবাদিক নিয়োগ চলছে।

কুষ্টিয়ায় পুরোনো কাপড় কেনাকাটা বাড়ছে

নিজস্ব প্রতিবেদক / ৩৬২ বার পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ১৯ জানুয়ারী, ২০২১, ৮:২৪ অপরাহ্ন

তীব্র কুয়াশায় যানবাহনও চলছে ধীরগতিতে, সতর্ক হয়ে ঘন কুয়াশা ও প্রচণ্ড শীতে কুষ্টিয়ায় জনজীবন বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। হাড় কাঁপানো শীতে চরম দুর্ভোগে পড়েছেন দরিদ্র ও স্বল্প আয়ের মানুষ। শীত থেকে বাঁচতে আগুন জ্বালিয়ে শরীর উষ্ণ রাখার চেষ্টা করছেন শীতার্ত এসব মানুষ। প্রচণ্ড শীতে স্বাভাবিক চলাফেরাও বন্ধ হয়ে পড়েছে। শীতের কারণে ঠাণ্ডাজনিত রোগের প্রকোপও বেড়েছে। সরকারি হাসপাতাল ও প্রাইভেট ক্লিনিকগুলোতে ঠাণ্ডাজনিত রোগে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। বেশি আক্রান্ত হচ্ছে শিশু ও বয়স্করা।
কুমারখালী উপজেলার ছেঁউড়িয়া মোল্লাপাড়া গ্রামের বিশিষ্ট সমাজ সেবক মোঃ আলতাফ হোসেন মোল্লাহ বলেন, ‘তীব্র শীতে ঘর থেকে বের হতেই পারছি না। যদিও বের হচ্ছি কাজের জন্য। কিন্ত কোনও কাজই ঠিকমতো করতে পারছি না।’ একই কথা জানালেন ছেঁউড়িয়া মোল্লাপাড়া চিকিৎসক ডাক্তার আওলাদ হোসেনও।
কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার (আএরমও) ডা. তাপস কুমার সরকার দৈনিক “লাখোকন্ঠ” পত্রিকার প্রতিবেদক কে বলেন, ‘তীব্র শীতের কারণে শিশু ও বয়স্করা সবচেয়ে বেশি শীতজনিত রোগে ভুগছে। এসময় তাদের প্রতি অনেক বেশি যত্নশীল হতে হবে।’
আগুন জ্বালিয়ে শরীরকে উষ্ণ রাখার চেষ্টা , এদিকে বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, প্রচণ্ড শীত ও কুয়াশার কারনে জনজীবন অনেকটাই অচল হয়ে পড়েছে। স্বল্প আয়ের মানুষজন কাজে যেতে পারছেন না শীতের কারণে। বিভিন্ন স্থানে খড়কুটো দিয়ে আগুন জ্বালিয়ে শীত নিবারণের চেষ্টা করছেন অনেকে। জেলার বিভিন্ন এলাকায় শীতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরণ করেছে সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠান।
শীতের পোশাকের জন্য নিম্ন আয়ের মানুষরা ছুটছেন ফুটপাতে, পুরনো কাপড়ের দোকানে।
এদিকে, শীতের তীব্রতা বেড়ে যাওয়ায় কুষ্টিয়ায় গরম কাপড়ের চাহিদাও বেড়েছে। নিম্নবিত্ত ও মধ্যবিত্ত পরিবারের সদস্যদের আনাগোনা থাকায় ফুটপাতের বেচাকেনাই জমজমাট হয়ে উঠেছে। আর নতুন কাপড়ের দাম বেড়ে যাওয়ায় পুরনো কাপড়ের দোকানের দিকে ক্রেতারা ঝুঁকে পড়ছেন নিম্ন আয়ের মানুষ। শহরের এনএস রোডের পাবলিক লাইব্রেরি মাঠের সামনে, বঙ্গবন্ধু সুপার মার্কেটের সামনেসহ বিভিন্ন স্থানে বসেছে পুরনো কাপড়ের পসরাও।
পুরনো কাপড় বিক্রেতারা বলেন, ‘শীত বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে গরম কাপড়ের চাহিদাও বেড়েছে। দাম কম হওয়ায় ক্রেতারাও এসব গরম কাপড় কেনার জন্য ঝুঁকছেন।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন


এ জাতীয় আরো খবর...
এক ক্লিকে বিভাগের খবর