শুক্রবার, ০৭ অক্টোবর ২০২২, ০২:৩৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
শিরোনাম :
লন্ডনে রোটারেক্ট নাসিম উদ্দিন ও ইঞ্জিনিয়ার এম সায়েম খাঁন সম্বর্ধিত বিভাগীয় গণ সমাবেশ, শোক র‌্যালিসহ দুই মাসব্যাপী কর্মসূচি ঘোষণা বিএনপির জনপ্রতিনিধি যখন চোরের সরদার ‘নির্বাচনে ইসির নির্দেশনা মেনে পুলিশ চলবে’ বাংলাদেশে আগামী নির্বাচন অবাধ হবে, মার্কিন রাষ্ট্রদূতের প্রত্যাশা রোহিঙ্গাদের অবশ্যই ফিরে যেতে হবে কুষ্টিয়ার খোকসা উপজেলা পরিষদের উপনির্বাচন ২ নভেম্বর কুষ্টিয়া জেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রতীক বরাদ্দ সম্পন্ন ইবিতে গুচ্ছভুক্ত পদ্ধতিতে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের ভর্তির বিষয়ে দ্বিতীয় সভা কুষ্টিয়া গড়াই নদীতে ভাঙ্গন; হুমকির মুখে স্কুল-মসজিদ সহ কয়েক’শ পরিবার
ঘোষণা:
দেশের প্রতিটি জেলায় সাংবাদিক নিয়োগ চলছে।

কুষ্টিয়ায় জাহাবুল হত্যা মামলার আসামী গ্রেফতার

নিজস্ব প্রতিবেদক / ৩৪৫ বার পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : সোমবার, ১ ফেব্রুয়ারী, ২০২১, ১০:৪০ অপরাহ্ন

জাহাবুল হত্যা মামলার আসামী শামসুল ইসলামকে গ্রেফতার করেছে পিবিআই। তাকে ভেড়ামারা উপজেলার আদম বেপারীপাড়া গ্রাম থেকে ভিকটিমের ব্যবহৃত হাইড্রলিক সিস্টেম ষ্টিয়ারিং (লাটাহাম্বা) ট্রলি গাড়ী সহ গ্রেফতার করা হয়।
গ্রেফতার শামছুল (২৭) মিরপুর উপজেলার নওদা গোবিন্দপুর এলাকার ফরু সর্দারের ছেলে। গত ২৯ জানুয়ার কুষ্টিয়া মিরপুর উপজেলায় নিখোঁজের ১০ দিন পর জাহাবুল ইসলাম (২২)এর অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।
আসামী শামসুল আদালতে জাহাবুল হত্যাকান্ডের কথা স্বীকার করে জানায়, সে ট্রলিটি হাতিয়ে নেওয়ার লোভে হ্যান্ডেল দিয়ে পেছন দিক থেকে জাহাবুলের মাথায় পর পর ৩/৪ টি আঘাত করে হত্যা করে। হত্যার দায় স্বীকার করে ১৬৪ ধারা মোতাবেক স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দি প্রদান করেছে।
এর আগে শুক্রবার (২৯ জানুয়ারি) মিরপুর উপজেলার তালবাড়িয়া ঘাট এলাকার পদ্মা নদীর তীরে বালুর স্তুপ থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।
জাহাবুল ইসলাম মিরপুর উপজেলার আমবাড়িয়া ইউনিয়নের হালসা সাগদরচর গ্রামের সাইকুল ইসলামের ছেলে। তিন ভাইয়ের মধ্যে সবার ছোট ছিলেন। তিনি অবিবাহিত। কুষ্টিয়া সদর উপজেলার ভাদালিয়া কাঞ্চনপুর এলাকার জসীম উদ্দীনের ইট ভাটায় ট্রলি গাড়ির চালকের কাজ করতেন। ব্যক্তিগত ট্রলি গাড়ি নিয়ে মাটির ইট বহনের কাজ করতেন জাহাবুল।
পুলিশ ও স্থানীয়রা সূত্রে জানা গেছে, গত ১৯ জানুয়ারি সন্ধ্যায় ইটভাটায় কাজে যাওয়ার কথা বলে বাড়ি থেকে বের হন জাহাবুল। কয়েকদিন পর্যন্ত বাড়ি না ফেরায় পরিবার ও স্বজনরা বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুঁজি করেন। না পেয়ে জাহাবুলের ভাই নিখোঁজের ঘটনায় নিহতের মেঝভাই মাহাবুল ইসলাম মিরপুর থানায় গত ২৪ জানুয়ারি একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন।
নিহতের মেজভাই মাহাবুল ইসলাম বলেন, শুক্রবার আমাদের কাছে মোবাইলে খবর যায় মিরপুর তালবাড়িয়া ঘাটে বালুর স্তুপের ভিতরে একটি মরদেহ পাওয়া গেছে। আমরা ছুটে এসে দেখি আমার ছোটভাই জাহাবুলের গলিত লাশ। এরপর আমরা পরিচয় শনাক্ত করেছি পুলিশের কাছে। একমাত্র ট্রলি গাড়ির কারণে আমার ভাই খুন হয়েছে। তার গাড়িটা চুরি করে নিয়েছে এবং আমার ভাইকে মাডার করা হয়েছে।
নিহত জাহাবুলের চাচা মারফত আলী বলেন, তার শারীরে বিভিন্ন জায়গায় আঘাতের চিহ্ন আছে। মাথার খুলি ভাঙ্গা। খুব অত্যাচার করে তাকে হত্যা করা হয়েছে। হত্যার পর তার ট্রলি গাড়িটি ছিনতাই করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন


এ জাতীয় আরো খবর...
এক ক্লিকে বিভাগের খবর