বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর ২০২২, ০৬:১৩ পূর্বাহ্ন
ঘোষণা:
দেশের প্রতিটি জেলায় সাংবাদিক নিয়োগ চলছে।

লাঠি হিসেবে ব্যবহারে জন্য পুলিশকে অস্ত্র দেয়নি সরকার: আইজিপি

নিজস্ব প্রতিবেদক / ৩৪০ বার পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : বুধবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী, ২০২১, ৭:০৪ অপরাহ্ন

লাঠি হিসেবে ব্যবহার কিংবা বুক চিতিয়ে গুলি খাওয়ার জন্য অস্ত্র দেয়নি সরকার। সন্ত্রাসীরা গুলি করলে সেটা প্রতিহত করতেই পুলিশকে অস্ত্র দেওয়া হয়েছে। প্রয়োজনের নিরিখে জীবন রক্ষার জন্য সরকারি অস্ত্র ব্যবহার করা হয় বলে জানিয়েছেন আইজিপি ড. বেনজীর আহমেদ।
রাজধানীর রাজারবাগ কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতালের (সিপিএইচ) নবনির্মিত ভবনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আজ বুধবার (২৪ ফেব্র“য়ারী) দুপুরে আইজিপি এসব কথা বলেন।
এ সময় তিনি বলেন, ‘বন্দুকযুদ্ধ হলে কি আমাদের লোকজন বন্দুক ফেলে পালিয়ে চলে আসবে? জাকির কুখ্যাত ডাকাত, কক্সবাজারে গিয়ে খবর নেন। গত তিন বছরে তার কাছ থেকে কমপক্ষে দেড়শ’ অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে। গতকাল যখন গোলাগুলিতে সে মারা গেছে, তখনও তার কাছ থেকে নয়টা অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে। যখন এ ধরনের কোন বিপদজনক আর্ম গ্যাং গুলি করবে, তখন কি আমরা শহীদ হয়ে চলে আসবো?’
তিনি বলেন, ‘যেখানে আর্ম গ্যাং আমাদের বিরুদ্ধে অস্ত্র ব্যবহার করবে, সেখানে আমরা প্রয়োজনের নিরিখে জীবন রক্ষার জন্য সরকারি অস্ত্র ব্যবহার করবো। সরকারি অস্ত্র দেওয়া হয়েছে সেটাকে প্রতিহত করবার জন্য। সরকার অস্ত্র দিয়েছে লাঠি হিসেবে ব্যবহারের জন্য না। লাঠি এক রকম আর লিথেল উইপন আরেক রকম। সরকার যদি শুধু লাঠি দেয়, আমরা লাঠিই ব্যবহার করবো।’
চলমান করোনাকালে কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতালের চিকিৎসক, নার্স, স্বাস্থ্যকর্মীদের প্রচেষ্টার কথা উল্লেখ করে আইজিপি বলেন, ‘করোনার চিকিৎসায় সিপিএইচ হাসপাতালের সেবা সেরা হিসেবে বিবেচিত হয়েছে। এখানে শুধু পুলিশ সদস্যদেরই নয়, সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারী এবং সাধারণ নাগরিকদেরও করোনা চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।’
তিনি বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর বদান্যতায় সিপিএইচ-কে মাত্র ছয় সপ্তাহে পূর্ণাঙ্গ কোভিড হাসপাতালে রূপান্তর করা হয়েছে। তিনি এ কাজে সহযোগিতার জন্য মাননীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, স্বরাষ্ট্র ও অর্থ মন্ত্রণালয়সহ সংশ্লিষ্ট সকলকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান।
‘শুধু পুলিশ সদস্যদের জন্যই নয়, সুযোগ থাকা সাপেক্ষে আমরা সাধারণ জনগণকেও সেবা দিতে চাই। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর আন্তরিকতায় বিভাগীয় ও জেলা পুলিশ হাসপাতালগুলো আধুনিকায়ন এবং উন্নয়নের ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।’
এ সময় ঊধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন। উল্লেখ্য, সিপিএইচে এক লাখ পাঁচ হাজার বর্গফুটের নবনির্মিত এ ভবনে আইসিইউ, সিসিইউ, এইচডিইউ ইউনিট স্থাপন করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন


এ জাতীয় আরো খবর...
এক ক্লিকে বিভাগের খবর