বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ০৬:৪০ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
শিরোনাম :
দুদকের পরিচালক হলেন কাজি সায়েমুজ্জামান মেধাবী ছাত্র আব্দুল্লাহ আল মামুন এর পাশে দাঁড়িয়েছেন নিঃস্বার্থ সেবা ফাউন্ডেশন জাতীয় শুদ্ধাচার কৌশল কর্মপরিকল্পনা বাস্তবায়নে ইবিতে সভা কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক হলেন রজত কান্তি দেব কক্সবাজারে দৈনিক ভোরের চেতনা পত্রিকার ২৪তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উৎযাপন মিরপুরে নার্সারি ব্যবসায়ী হত্যাকাণ্ডে গ্রেফতার ১ ইবি ও জবি’র গবেষণা সহযোগিতা সংক্রান্ত সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর উন্নত চিকিৎসার জন্য চ্যালেঞ্জকে ঢাকায় প্রেরণ ব্রাজিল ফ্যান ক্লাবের বর্ণাঢ্য র‌্যালী বাউলদের উপর হামলা ও সাম্প্রদায়িক উগ্রবাদী তৎপরতার প্রতিবাদে মানববন্ধন
ঘোষণা:
দেশের প্রতিটি জেলায় সাংবাদিক নিয়োগ চলছে।

স্পেশাল নিউজ’র আলোচনা ‘গগন হরকরা’

নিজস্ব প্রতিবেদক / ৪৮৮ বার পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : শুক্রবার, ১৯ ফেব্রুয়ারী, ২০২১, ৫:০২ পূর্বাহ্ন

অযত্ন-অবহেলায় রয়েছে গগন হরকরা’র ভাষ্কর্যটি। গগন হরকরা’র ইতিহাস হয়তো নতুন প্রজন্মের অনেকেই খুববেশী নাও জানতে পারে। গনন হরকার’র পুরোনাম ছিল গগন চন্দ্র দাস ওরফে গগন হরকরা। গগন হরকরা ডাকপিয়ন হিসেবে যেমন দায়িত্বশীল ছিলেন তেমনি ছিলেন দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ। আড়ালে থাকা এই মহামানবের ভাষ্কর্য তৈরি করে সামনে নিয়ে এসেছেন আরেক গুণী মানুষ কুষ্টিয়া পৌর মেয়র আনোয়ার আলী। গগন হরকরার স্মৃতি রক্ষার্থে ধারাবাহিকভাবে কাজ করা হবে। এ ধরনের অনেক কিছুই উঠে এসেছে ‘গগন হরকরা’ শিরোনামে স্পেশাল নিউজ ২৪.কম এর বিশেষ আলোচনায়।
বৃহস্পতিবার (১৮ ফেব্র“য়ারী) বিকেলে ৪টায় অনলাইনে সরাসরি সম্প্রচারিত এ আলোচনায় যোগ দেন, দৈনিক কুষ্টিয়ার সম্পাদক ও গবেষক ড. আমানুর আমান ও কুষ্টিয়া প্রেসক্লাবের সভাপতি, দৈনিক আজকের আলো’র সম্পাদক গাজী মাহাবুব রহমান। স্পেশাল নিউজ ২৪.কম এর সম্পাদক হাসান জাহিদের সঞ্চালনায় গগন ভাষ্কর্যস্থল থেকে যুক্ত ছিলেন সাংবাদিক শেখ হাসান বেলাল।
গগন হরকরা’র বিখ্যাত গান ‘আমি কোথায় পাব তারে/ আমার মনের মানুষ যেরে’ দিয়ে আলোচনা শুরু হয়। গান পরিবেশন করেন এ প্রজন্মের শিল্পী কবির হাসান বকুল।
এ সমসয় কুষ্টিয়া শহরের নিশান মোড় থেকে গগন হরকরার ভাষ্কর্যস্থলের দৃশ্য দেখান সাংবাদিক শেখ হাসান বেলাল। তিনি বলেন, ভাস্কর্যটি অনেকটা অযত্ন-অবহেলায় রয়েছে। এর হাতের অংশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এখান থেকে ঘন্টি খুলে গেছে। বর্ষা আর হারিকেন খুলে পড়ে আছে বেদীর ওপর। সেখানে নেই গগন হরকরা সম্পর্কে কোন বর্ণনা। বরং ভাষ্কর্যের পরিকল্পনাকারী আনোয়ার আলীর নাম এমনভাবে লাগানো হয়েছে তাতে মনে হতে পারে এই ভাষ্কর্যটিই আনোয়ার আলীর।
আলোচনায় গগন চন্দ্র দাস ওরফে গগন হরকরার জীবনের ওপর আলোকপাত করেন গবেষক ড. আমানুর আমান। তিনি বলেন, গগন চন্দ্র ডাকপিয়ন হিসেবে যেমন দায়িত্বশীল ছিলেন তেমনি ছিলেন দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ। শিলাইদহে নিভৃত পল্লীতে ছিলো তার বাস। নিভৃতচারী এই লোকসংগীত শিল্পী এবং গীতিকারের গানে উদ্বুদ্ধ হয়ে এবং সেই সুরে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর রচনা করেন আমার সোনার বাংলা আমি তোমায় ভালবাসি, যা আমাদের জাতীয় সংগীত। আড়ালে থাকা এই মহামানবের ভাষ্কর্য তৈরি করে সামনে নিয়ে এসেছেন আরেক গুণী মানুষ মেয়র আনোয়ার আলী।
অন্য আলোচক কুষ্টিয়া প্রেসক্লাবের সভাপতি ও গগন হরকরা রিসার্চ অ্যান্ড কালচারাল সেন্টারের সভাপতি গাজী মাহাবুব রহমান বলেন, গগন হরকরার স্মৃতি রক্ষায় আরো উদ্যোগ নিতে হবে। তিনি বলেন, যদিও বিক্রি করে দিয়েছেন তার উত্তরপুরুষরা তবুও তারা বাড়ি সংরক্ষণ করা দরকার।
লোকসংগীত শিল্পী গগন হরকরাসহ কুষ্টিয়ার সব গুণীজনের স্মৃতি রক্ষা করবে কুষ্টিয়া পৌরসভা। ‘গগন হরকরা’ শিরোনামে আলোচনায় একথা বলেন কুষ্টিয়া পৌর মেয়র আনোয়ার আলী। তিনি আরো বলেন, এই গগন হরকরার ভাষ্কর্য সংস্কারের উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে। এটি ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্থ হয়। নির্মাতা শিল্পীকে খবর দেয়া হয়েছে তিনি আসলেই এটা সংস্কার করা হবে। আর ভাষ্কর্যস্থলে যা যা পরিবর্তন দরকার তা করা হবে বলেও জানান তিনি। আনোয়ার আলী বলেন, শুধু তাইই নয়, গগন হরকরার স্মৃতি রক্ষার্থে ধারাবাহিকভাবে কাজ করা হবে। যাদের নিয়ে কুষ্টিয়ার মানুষ গর্ব করে তাদেরকে মানুষের সামনে নিয়ে আসার পরিকল্পনা আছে কুষ্টিয়া পৌরসভার বলেন মেয়র আনোয়ার আলী। তিনি আরো বলেন, এ দায়িত্ব কুষ্টিয়ার সব মানুষের। সবাইকে সম্মিলিতভাবে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান তিনি। পুরো আলোচনা অনুষ্ঠানটি স্পেশাল নিউজ (এসএন) এর ফেসবুক পেইজে সম্প্রচারিত হচ্ছে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন


এ জাতীয় আরো খবর...
এক ক্লিকে বিভাগের খবর