বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ০৮:৩৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
শিরোনাম :
দুদকের পরিচালক হলেন কাজি সায়েমুজ্জামান মেধাবী ছাত্র আব্দুল্লাহ আল মামুন এর পাশে দাঁড়িয়েছেন নিঃস্বার্থ সেবা ফাউন্ডেশন জাতীয় শুদ্ধাচার কৌশল কর্মপরিকল্পনা বাস্তবায়নে ইবিতে সভা কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক হলেন রজত কান্তি দেব কক্সবাজারে দৈনিক ভোরের চেতনা পত্রিকার ২৪তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উৎযাপন মিরপুরে নার্সারি ব্যবসায়ী হত্যাকাণ্ডে গ্রেফতার ১ ইবি ও জবি’র গবেষণা সহযোগিতা সংক্রান্ত সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর উন্নত চিকিৎসার জন্য চ্যালেঞ্জকে ঢাকায় প্রেরণ ব্রাজিল ফ্যান ক্লাবের বর্ণাঢ্য র‌্যালী বাউলদের উপর হামলা ও সাম্প্রদায়িক উগ্রবাদী তৎপরতার প্রতিবাদে মানববন্ধন
ঘোষণা:
দেশের প্রতিটি জেলায় সাংবাদিক নিয়োগ চলছে।

ফিতরাত হুসাইন’র “একটি খুন ও একটি গল্প” শেষে বিচার দাবী

নিজস্ব প্রতিবেদক / ৫৫১ বার পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ২৩ মার্চ, ২০২১, ৩:৩৭ অপরাহ্ন

লন্ডন প্রবাসী তৌহিদ সৈয়দ ফিতরাত হুসাইন। তার কিছু লেখা, অভিমত প্রকাশ, নিখুত সঠিক কথা সাহসিতার কন্ঠসরে বেজে ওঠা ধ্বনিগুলো চাপা থাকা সংগ্রামী মানুষের মনকে দারুনভাবে ঝাকি দেয়। তৌহিদ সৈয়দ ফিতরাত হুসাইন এর কন্ঠস্বরে বেজে ওঠা ধ্বনির এমন একটি উদাহরনে বলতে পারি “আর্দশের সংগ্রামে পদপদবী লাগেনা”। ইতিপূর্বে একথা বলে তিনি অনেকের নড়বড়ে মনকে শক্ত করার সাহস জুগিয়েছিলেন, উষ্ণতার ঝাকি দিয়েছিলেন হৃদয়কে।

এবার তিনি ১৯ বছর আগের এক বন্ধু খুন হওয়া সেই একই এলাকায় গতকাল খুন হওয়া শাহীন হত্যাকারীদের বিচার দাবী করে ফেসবুকে লিখেছেন “একটা খুন ও একটা গল্প”

লেখাটি হুবহু তুলে ধরা হলো-

একটি খুন ও একটি গল্প
—————————————-

২০০২ সাল কোন এক শীতের রাত । সিলেটের শীতকালের রাত দশটা তখন অনেক রাত। চুটিয়ে আড্ডা দিচ্ছি বন্ধু প্রতিম বড়ভাই আব্দুল বারী সহ। জমানো আড্ডা বন্ধ করে তিনি চলে যেতে চাইলে না না করে উঠলাম।

ঃ না বা রাইত ওই গেছে যাইগি ।
ঃ কেনে বা বারী ভাই , আরেকটু বও।
ঃ নারে ভাই মানুষ জনর চলাফেরা থাকতে থাকতে ফিরা বালা
দিনকাল বালা নায়।
আমি অবাক হয়ে বললাম। বারী ভাই
ঃ হপার তোমারে কেগুয়ে কিতা করতো ? কার ওঁত সাহস ?
বারী ভাই আমার কথার উত্তরে যা বললেন তা আমার জীবনের জন্য এক পরম শিক্ষা। আমি মনের ভেতর গেথে রেখেছি।
বারী ভাই সিলেটের স্বনামধন্য প্রতাপশালী দারা মিয়ার ভাতিজা।
যার নামে বাঘে মহিষ এক ঘাটে পানি খায়। যাকে নিয়ে সিলেটে অনেক রূপকথার ন্যায় গল্প বলা হয়। আর আমি মারিয়া পুজ্যোর গডফাদার পড়ার পর এবং যখনই পড়তাম চোখের সামনে দেখতাম দারা মিয়া ডন দি ভিটো কর্লিয়নি । তারই ভাতিজা তারই রাজত্বে রাত গভীরে বাড়ী যেতে ভীত হোন। অবাক করা বিষয় হলেও তা সত্য গল্প।
বারী ভাই বললেন রাতের দক্ষিন সুরমা – হেতীমগন্জ সড়কটি লোক শূন্য হবার পর চলাফেরা বিপজ্জনক । তারজন্য আরও বিপদজ্জনক। যদি কোন ছিনতাইকারী পথ রোধ করে এবং বারী ভাইকে দেখে সে তার ( অপরাধী ) নিরাপত্তার জন্য বারী ভাইকে হত্যা করতে বাধ্য। ভেবে দেখলাম পরিচিত বা প্রভাবশালী হবার বিপদও কম না। বিশ্বাস থাকা ভাল অতিবিশ্বাস ও আস্তা জীবন নাশের কারন হতে পারে।
সিলেটের এই একই উল্লেখিত সড়ক ধরে রাত গভীরে গতকাল বাড়ী ফেরার পথে খুন হল হেতীমগন্জের শাহীন। রহস্যজনক মৃত্যু। শাহীন পরিচিত মুখ। রাজনীতি করা মানুষ। প্রভাবশালী কি না জানিনা তবে ভাল মানুষ জানি। ব্যক্তিগত পরিচয় ঘনিষ্ট নয় যদিও। প্রশ্ন হল ঢাকা থেকে বাড়ী ফেরার খবর কে কে জানত? নাকি বেপোরওয়া কোন ছিনতাইকারীর সামনে পড়ে দিয়ে সাহসী শাহীনকে জীবন দিতে হল অকালে ?
আজকাল টেকনোলজি অনেক উন্নত। প্রশাসন ও মানুষ চাইলে সত্য উদ্ঘাটন করে আসামীদের আইনের মাধ্যমে বিচারের ব্যবস্থা করা যায়।
শাহীনের আত্মার মাগফেরাত ও জান্নাত কামনায় দোয়া করি মহান পাক রাব্বুল আলামীনের কাছে।
শাহীন হত্যার বিচার চাই
জয় বাংলা জয় বঙ্গবন্ধু।
২৩/০৩/২০২১
এই সড়কে ডাকাতির কবলে পড়ে তিন লক্ষ টাকা খোয়া যায় আরেক নেতার। ডাকাত তারই দলের মানুষ। সে গল্প আরেকদিন—
 ফিতরাত হুসাইন এর আরো লেখা পড়ুন:

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন


এ জাতীয় আরো খবর...
এক ক্লিকে বিভাগের খবর