মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১২:৩৫ পূর্বাহ্ন
ঘোষণা:
দেশের প্রতিটি জেলায় সাংবাদিক নিয়োগ চলছে।

কুষ্টিয়ায় কালবৈশাখী ঝড়ে নিহত ১

সলেমান শাহ, কুষ্টিয়া প্রতিনিধি / ৩২৯ বার পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : সোমবার, ৫ এপ্রিল, ২০২১, ৭:৪৬ পূর্বাহ্ন

কুষ্টিয়া ভেড়ামারা উপজেলায় কালবৈশাখী ঝড়ের তাণ্ডবে নির্মাণাধীন দোকানঘরের উড়ন্ত টিনে গলা কেটে রবিউল ইসলাম (৪০) নামের এক ব্যবসায়ীর মৃত্যু হয়েছে। রোববার (৪ এপ্রিল) সন্ধ্যায় ভেড়ামারা উপজেলার ধরমপুর ইউনিয়নের মহিশাডরা এলাকার দফাদার ফিলিং স্টেশনের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত রবিউল ইসলাম কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার হোগলবাড়িয়া ইউনিয়নের শশিধরপুর এলাকার সাদ মন্ডলের বড় ছেলে। রবিউল পেঁয়াজের ব্যবসা করতেন।

নিহত রবিউল ইসলামের মেজ ভাই সুরমার আলী প্রতিবেদককে জানান, সন্ধ্যার দিকে ভেড়ামারার মহিশাডরা এলাকার দফাদার ফিলিং স্টেশনের সামনে কালবৈশাখী ঝড়ে উড়ন্ত টিনে গলা কেটে গুরুতর আহত হন রবিউল। উক্ত স্থান থেকে দ্রুত তাকে উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নেওয়ার পথে তিনি মারা যান।

নিহত ব্যক্তির পরিবার জানা গেছে, রোববার দুপুরে রবিউল ইসলাম বাড়ি থেকে ভেড়ামারা উপজেলার সাতবাড়িয়া এলাকায় পেঁয়াজ কিনতে যান। সেখান থেকে ফেরার পথে এ দুর্ঘটনা ঘটে। রবিউল পেঁয়াজবাহী ট্রলির ওপর বসে ছিলেন। চলন্ত অবস্থায় কিছু বুঝে ওঠার আগেই নির্মাণাধীন একটি দোকানের টিন উড়ে এলে গলা কেটে গুরুতর আহত হলে দ্রুত তাকে কুষ্টিয়া সদর হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

অন্যদিকে কুষ্টিয়ার কয়েকটি উপজেলায় কালবৈশাখী ঝড়ে বেশ কিছু কাঁচা ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত হয়েছে। বহু গাছপালা উপড়ে রাস্তায় পড়েছে। এতে বিদ্যুতের দুটি পর্যন্ত খুঁটি উপড়ে গেছে। ঝড়ে ফসলেও ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। ভেড়ামারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহজালাল বিষয়টি নিশ্চিত করে প্রতিবেদককে জানান, মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

কুষ্টিয়া ভেড়ামারা উপজেলায় কালবৈশাখী ঝড়ের তাণ্ডবে নির্মাণাধীন দোকানঘরের উড়ন্ত টিনে গলা কেটে রবিউল ইসলাম (৪০) নামের এক ব্যবসায়ীর মৃত্যু হয়েছে। রোববার (৪ এপ্রিল) সন্ধ্যায় ভেড়ামারা উপজেলার ধরমপুর ইউনিয়নের মহিশাডরা এলাকার দফাদার ফিলিং স্টেশনের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত রবিউল ইসলাম কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার হোগলবাড়িয়া ইউনিয়নের শশিধরপুর এলাকার সাদ মন্ডলের বড় ছেলে। রবিউল পেঁয়াজের ব্যবসা করতেন।

নিহত রবিউল ইসলামের মেজ ভাই সুরমার আলী প্রতিবেদককে জানান, সন্ধ্যার দিকে ভেড়ামারার মহিশাডরা এলাকার দফাদার ফিলিং স্টেশনের সামনে কালবৈশাখী ঝড়ে উড়ন্ত টিনে গলা কেটে গুরুতর আহত হন রবিউল। উক্ত স্থান থেকে দ্রুত তাকে উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নেওয়ার পথে তিনি মারা যান।

নিহত ব্যক্তির পরিবার জানা গেছে, রোববার দুপুরে রবিউল ইসলাম বাড়ি থেকে ভেড়ামারা উপজেলার সাতবাড়িয়া এলাকায় পেঁয়াজ কিনতে যান। সেখান থেকে ফেরার পথে এ দুর্ঘটনা ঘটে। রবিউল পেঁয়াজবাহী ট্রলির ওপর বসে ছিলেন। চলন্ত অবস্থায় কিছু বুঝে ওঠার আগেই নির্মাণাধীন একটি দোকানের টিন উড়ে এলে গলা কেটে গুরুতর আহত হলে দ্রুত তাকে কুষ্টিয়া সদর হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

অন্যদিকে কুষ্টিয়ার কয়েকটি উপজেলায় কালবৈশাখী ঝড়ে বেশ কিছু কাঁচা ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত হয়েছে। বহু গাছপালা উপড়ে রাস্তায় পড়েছে। এতে বিদ্যুতের দুটি পর্যন্ত খুঁটি উপড়ে গেছে। ঝড়ে ফসলেও ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। ভেড়ামারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহজালাল বিষয়টি নিশ্চিত করে প্রতিবেদককে জানান, মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন


এ জাতীয় আরো খবর...
এক ক্লিকে বিভাগের খবর