শুক্রবার, ০৭ অক্টোবর ২০২২, ০২:৫৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
শিরোনাম :
লন্ডনে রোটারেক্ট নাসিম উদ্দিন ও ইঞ্জিনিয়ার এম সায়েম খাঁন সম্বর্ধিত বিভাগীয় গণ সমাবেশ, শোক র‌্যালিসহ দুই মাসব্যাপী কর্মসূচি ঘোষণা বিএনপির জনপ্রতিনিধি যখন চোরের সরদার ‘নির্বাচনে ইসির নির্দেশনা মেনে পুলিশ চলবে’ বাংলাদেশে আগামী নির্বাচন অবাধ হবে, মার্কিন রাষ্ট্রদূতের প্রত্যাশা রোহিঙ্গাদের অবশ্যই ফিরে যেতে হবে কুষ্টিয়ার খোকসা উপজেলা পরিষদের উপনির্বাচন ২ নভেম্বর কুষ্টিয়া জেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রতীক বরাদ্দ সম্পন্ন ইবিতে গুচ্ছভুক্ত পদ্ধতিতে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের ভর্তির বিষয়ে দ্বিতীয় সভা কুষ্টিয়া গড়াই নদীতে ভাঙ্গন; হুমকির মুখে স্কুল-মসজিদ সহ কয়েক’শ পরিবার
ঘোষণা:
দেশের প্রতিটি জেলায় সাংবাদিক নিয়োগ চলছে।

সিলেটে তুচ্ছ ঘটনায় নিহত-১; আরেকজনের অবস্থা আশংকাজনক

নিজস্ব প্রতিবেদক / ৩১৩ বার পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : শুক্রবার, ৩০ এপ্রিল, ২০২১, ১২:৩৬ পূর্বাহ্ন

সিলেটের কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার পুটামারা গ্রামে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের হামলায় হারুন মিয়া (৫০) নামের এক ব্যক্তি নিহত হয়েছে এবং ফয়জুল মিয়া (৪০) নামের আরেকজন খুবই আশংকাজনক অবস্থায় সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেলে চিকিৎসাধীন রয়েছে।নিহত হারুন মিয়া পুটামারা পশ্চিম পাড়া গ্রামের সিরাজ মিয়ার ছেলে।বুধবার দুপুর ৩ টার দিকে উপজেলার পুটামারা গ্রামে দুই পক্ষের মধ্যকার এক সংঘর্ষের একদিন পরে হারুন মিয়া নিহত হয়।
এ ঘটনায় স্থানীয় বিক্ষোব্ধ জনতা অভিযান চালিয়ে
আব্দুল মুছব্বির মিয়ার পুত্র আইন উদ্দিন(৩২) নামক হত্যায় সংশ্লিষ্ট এক অভিযুক্তকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে।

সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, পুটামারা গ্রামের পশ্চিম পাড়ার নুরু উদ্দিনের স্ত্রীর কাছে সুদে টাকা দেয় একই গ্রামের আলী আহমদের স্ত্রী সুলতানা বেগম। প্রদেয় টাকার সুদের বিনিময়ে ধান দেওয়ার কথা।ঘটনাস্থলে আয়েশা বেগম তার প্রাপ্য সুদ বাবদ ধান আনতে গেলে ধানের ওজন কম বেশী নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে বাগ বিতান্ডা শুরু হয়।

দুই পক্ষের বাগ বিতান্ডা চলাকালে হারুন মিয়া ঘটনাস্থলে পৌছালে অবস্থা চরম আকার ধারন করে। এ সময় উপস্থিত নুরু উদ্দিন মিয়া ও কয়েকজন মিলে হারুন মিয়াকে অপদস্থ করে।

এঘটনার সূত্র ধরে হারুন মিয়া ও নুরু উদ্দিনের পক্ষের লোকজনের মধ্যে ধাওয়া পালটা ধাওয়া শুরু হয়। দুই পক্ষের ধাওয়া পালটায় অন্তত ১৫ জন আহত হয়।গুরুতর আহতবস্থায় হারুন মিয়াসহ কয়েকজনকে তাৎক্ষণিকভাবে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।চিকিৎসাধীন অবস্থায় (২৯ এপ্রিল) বৃহস্পতিবার সকাল এগারটার সময় সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে হারুন মিয়া মারা যান।

সংঘর্ষের খবর পেয়ে কোম্পানীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ কেএম নজরুল জাহান কাজল নিহতের পরিবারের কাছে ছুটে যান এবং অপরাধীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দেন।

কেএম নজরুল প্রতিবেদককে বলেন, নিহতের লাশ সুরতহাল প্রতিবেদন শেষে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে।এঘটনায় একজন অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়েছে।শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত নিহতের স্ত্রী বাদী হয়ে কোম্পানীগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন


এ জাতীয় আরো খবর...
এক ক্লিকে বিভাগের খবর