বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ০৮:৩৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
শিরোনাম :
দুদকের পরিচালক হলেন কাজি সায়েমুজ্জামান মেধাবী ছাত্র আব্দুল্লাহ আল মামুন এর পাশে দাঁড়িয়েছেন নিঃস্বার্থ সেবা ফাউন্ডেশন জাতীয় শুদ্ধাচার কৌশল কর্মপরিকল্পনা বাস্তবায়নে ইবিতে সভা কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক হলেন রজত কান্তি দেব কক্সবাজারে দৈনিক ভোরের চেতনা পত্রিকার ২৪তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উৎযাপন মিরপুরে নার্সারি ব্যবসায়ী হত্যাকাণ্ডে গ্রেফতার ১ ইবি ও জবি’র গবেষণা সহযোগিতা সংক্রান্ত সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর উন্নত চিকিৎসার জন্য চ্যালেঞ্জকে ঢাকায় প্রেরণ ব্রাজিল ফ্যান ক্লাবের বর্ণাঢ্য র‌্যালী বাউলদের উপর হামলা ও সাম্প্রদায়িক উগ্রবাদী তৎপরতার প্রতিবাদে মানববন্ধন
ঘোষণা:
দেশের প্রতিটি জেলায় সাংবাদিক নিয়োগ চলছে।

সোনারগাঁয়ে হেফাজতের তান্ডবের অভিযোগে শেখ ওসমান গনি বেলাল গ্রেফতার

তুহিন, নারায়ণগঞ্জ / ৪৯৮ বার পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল, ২০২১, ৯:৩৯ অপরাহ্ন

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে শেখ ওসমান গনি বেলাল নামে একজনকে হেফাজত ইসলামের তান্ডবের সাথে সম্পৃক্ততার অভিযোগে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। পরে তাকে জেলা আদালতে পাঠানো হয়েছে।

সূত্রে জানা গেছে, সোনারগাঁয়ে রয়েল রিসোর্টে মামুনুল হক কান্ডে হেফাজত ইসলামের নেতা-কর্মীদের হামলা, ভাংচুর ও অবরোধের ঘটনায় সন্ত্রাস বিরোধী আইনে এবং ক্ষতিগ্রস্থ উপজেলা যুবলীগের সভাপতি রফিকুল ইসলাম নান্নুর দায়ের করা মামলায় ৪৮ নং এজাহারনামীয় আসামি সাদিপুর ইউনিয়নের কোনাবাড়ী গ্রামের বিল্লাল মিয়ার ছেলে শেখ ওসমান গনি বেলালকে সোমবার গ্রেফতার করে জেলা আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ।

পুলিশের হাতে গ্রেফতারকৃত শেখ ওসমান গনি বেলাল ঢাকায় মতিঝিল এলাকায় অবস্থিত যমুনা লাইফ ইনসিওরেন্স কোম্পানি লিমিটেডে উন্নয়ন সহকারী ব্যবস্থাপনা পরিচালকের পদে চাকরীরত ছিলেন। সেখানে দীর্ঘদিন কাজ করা অবস্থায় বিভিন্ন এলাকার লোক বা গ্রাহকের সাথে তার পরিচয় হয়। সেই পরিচয়েরসূত্রে তিনি দীর্ঘদিন যাবত যমুনা লাইফ ইনসিওরেন্স কোম্পানি লিমিটেডে থাকা অবস্থায় বেশকিছু লোককে বীমার গ্রাহক হিসেবে এবং ঐ প্রতিষ্ঠানে ভালো চাকরী দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে তাদের অনেকের কাছ থেকেই মোটা অংকের অর্থ হাতিয়ে নেন। এছাড়াও তিনি অনেককে বিদেশে পাঠানোর প্রলোভন দেখিয়ে তাদের কাছ থেকে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেন। কিন্তু গ্রাহক বা সেসব লোকেরা শেখ ওসমান গনি বেলালের প্রতারনার ফাঁদের পড়ে বুঝতে পারেনি যে তারা প্রতারিত হয়েছে। যখন তারা বুঝতে পেরেছেন, তখন শেখ ওসমান গনি বেলাল সেই যমুনা লাইফ ইনসিওরেন্স কোম্পানি লিমিটেডের উন্নয়ন সহকারী ব্যবস্থাপনা পরিচালকের পদ থেকে পালিয়ে গিয়ে ঢাকায় আরেকটি কোম্পানীতে যোগদান করেন এবং গোপনে তার ব্যক্তিগত সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম (ফেসবুক) লাইভে এসে তার পদত্যাগের কথা জানিয়ে দেন। এদিকে প্রতারনার শিকার সেসব গ্রাহক বা লোকেরা যমুনা লাইফ ইনসিওরেন্স কোম্পানি লিমিটেডের অফিসে গিয়ে শেখ ওসমান গনি বেলালকে খুঁজতে থাকেন এবং এক পর্যায়ে তারা কোম্পানীর বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে থাকা কর্মকর্তাদের নিকট শেখ ওসমান গনি বেলালের প্রতারনার কথা জানান এবং বিক্ষোভ শুরু করেন। এদিকে প্রতারক শেখ ওসমান গনি বেলাল নিজেকে বাংলাদেশ জনতা পরিষদ-বিজেপি’র প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান বলে সর্বত্র জাহির করে থাকেন। এমনকি তার সাথে রয়েছে বিভিন্ন সরকারী-বেসরকারী সংগঠন ও উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাদের সু-সম্পর্ক।

এ বিষয়ে যমুনা লাইফ ইনসিওরেন্স কোম্পানি লিমিটেডের সিনিয়র এ্যসিস্ট্যান্ট ম্যানেজিং ডাইরেক্টর ওমর ফারুক জানান, প্রতারক ওসমান গনি বেলাল প্রথমে উপজেলার কোনাবাড়ী গ্রামের পাশে পেরাব বাজারে তারা স্বামী স্ত্রী মিলে ভাতের হোটেল চালাতো এবং বেচাকেনা করতো। এছাড়া বিভিন্ন মানুষের সাথে প্রতারনার কারনে এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিরা বেলালকে তার মাথার চুল কেটে ন্যাড়া বানিয়ে মাথায় চুন কালি মেখে জুতার মালা দিয়ে এলাকায় ঘুরিয়েছে। তারপরেও সে সাহেদের চেয়ে বেশী প্রতারনা করে যাচ্ছে। এলাকাবাসী আরো জানান, বাটপার শেখ ওসমান গনি বেলালের নামে-বেনামে আরও ১০টি ফেইজবুক ফেক আইডি রয়েছে। সোনারগাঁ থানা পুলিশ তাকে গ্রেফতারও করেছে এবং কয়েকবার সে জেলও খাটে। তারপর সে প্রতারনার ব্যবসা ছেড়ে প্রথমে বিএনপি পরে জামায়াত ও এখন বিজেপি নামে কয়েকটি সংগঠনের আড়ালে বাটপারি করে যাচ্ছে। সে কখনও মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ছবি দিয়ে আইডি খুলে, কখনওবা আইজি স্যারের ছবি দিয়ে আইডি খুলে আবার কখনোবা বিভিন্ন নামে তার দশটি ফেক আইডি চলমান। কিছুদিন আগে প্রায় দুই লাখ টাকা রেলওয়েতে চাকুরীর প্রলোভন দেখিয়ে সাইফুল নামে যশোরের এক ব্যক্তির নিকট থেকে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নেয়। তার কিছুদিন পর নারায়নগঞ্জের বন্দরে হাবিব নামে আরেকজন ব্যক্তির নিকট থেকে আদম ব্যবসার নাম করে একটি ভুয়া জাল ভিসা ও একটি টিকেট দিয়ে দুইলক্ষ টাকা হাতিয়ে নেয়। এরই পরিপ্রেক্ষিতে প্রতারক বাটপার শেখ ওসমান গনি বেলাল তদন্তের মাধ্যমে প্রমানসহ ফেঁসে যায়। এর কিছুদিন পর সে চলে আসে ঢাকায়, পূণরায় শুরু করে আদম ব্যবসা। অনেক মানুষকে বিদেশে পাঠাবে বলে হাতিয়ে নেয় সাধারণ মানুষের কাছ থেকে লক্ষ লক্ষ টাকা। আদম ব্যবসা ও সোনারগাঁ উপজেলায় শুরু করে জমির দালালী। এভাবে মানুষের সাথে প্রতারণা করতে করতে সে রাতারাতি অনেক টাকার মালিক বনে যায়। এরপর থেকেই শুরু হয় তার নানা অপকর্ম। এছাড়াও নারায়ণগঞ্জ সদর থানায় তার নামে রয়েছে ডিজিটাল আইনে একটি মামলা। তার বিরুদ্ধে রয়েছে জানা অজানা আরো বেশ কয়েকটি প্রতারনা ও অপকর্মের বিভিন্ন মামলা। এদিকে এসব মামলা থেকে সে নিজেকে রক্ষা করতে ঢাকার মতিঝিলে যমুনা লাইফ ইনসিওরেন্স কোম্পানিতে যোগদান করে এবং পরবর্তীতে বিভিন্ন মানুষকে চাকরি দেয়ার কথা বলে হাতিয়ে নিয়েছে লক্ষ লক্ষ টাকা। তার বিভিন্ন দূর্ণীতি ও অপকর্মের কারণে উপজেলার সাদিপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ থেকে তাকে বহিষ্কার করা হলে সে তার সকল তথ্য গোপন করে যোগদান করে বিজেপিতে। প্রতারক শেখ ওসমান গনি বেলালের সাথে এ সমস্ত অপকর্মে জড়িত রয়েছে তার স্ত্রী মৌসুমী পারভীনসহ সোনারগাঁয়ের দু’একজন স্থানীয় ব্যক্তি ও কয়েকজন টিকটক অভিনেত্রী এবং অন্যান্য জেলার কয়েকজন প্রতারক চক্র। তাই প্রতারক শেখ ওসমান গনি বেলাল গংদের কাছ থেকে সোনারগাঁবাসীকে সাবধানে থাকার অনুরোধ জানিয়েছেন স্থানীয় সুশীল সমাজ।

অপরদিকে, ঢাকা যমুনা লাইফ ইনসিওরেন্স কোম্পানী লিমিটেডের প্রধান কার্যালয়ের ভাইস প্রেসিডেন্ট এন্ড বিভাগীয় প্রধান ও উন্নয়ন প্রশাসন বিভাগ এর লায়ন মোঃ ছায়েদুল হক শামীম জানান, শেখ ওসমান গনি বেলালকে এএমডি (আইডি নাম্বার-০০০১২২৩২) কোম্পানীর প্রশাসনিক শৃঙ্খলা ভঙ্গ ও বিভিন্ন অনিয়মের কারণে গত ০৬/০৪/২০২১ মঙ্গলবার কোম্পানীর চাকুরী হতে বহিষ্কার করা হয়েছে। তাই যমুনা লাইফ ইনসিওরেন্স কোম্পানীর সংশ্লিষ্ট সবাইকে যে কোন লেনদেন শেখ ওসমান গনি বেলালের সাথে না করার জন্য অনুরোধ করেন। যদি কেউ করে থাকেন তবে তার দ্বায়-দ্বায়িত্ব যমুনা লাইফের উপর বর্তাবে না বলেও তিনি জানান।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন


এ জাতীয় আরো খবর...
এক ক্লিকে বিভাগের খবর