মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০২:০৬ পূর্বাহ্ন
ঘোষণা:
দেশের প্রতিটি জেলায় সাংবাদিক নিয়োগ চলছে।

গোয়ালন্দে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন মামলায় গ্রেপ্তার-১

জহুরুল ইসলাম হালিম, রাজবাড়ী / ৪২৫ বার পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : বুধবার, ৫ মে, ২০২১, ৯:২০ অপরাহ্ন

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলায় একজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার দিনগত রাত ১১ টার দিকে উপজেলার দৌলতদিয়া ঘাট এলাকা থেকে এ মামলার ১ নং আসামি সুজন খন্দকারকে (৩০) গ্রেপ্তার করে।
গোয়ালন্দ ঘাট থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দায়ের করেছেন যুগান্তরের গোয়ালন্দ উপজেলা প্রতিনিধি ও গোয়ালন্দ প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শামীম শেখ।

পুলিশ মঙ্গলবার দিনগত রাত ১১ টার দিকে উপজেলার দৌলতদিয়া ঘাট এলাকা থেকে এ মামলার ১ নং আসামি সুজন খন্দকারকে (৩০) গ্রেপ্তার করে। সে উপজেলার দৌলতদিয়া শাহাদাৎ মেম্বার পাড়ার মৃত মোহাম্মদ আলী খোন্দকারের ছেলে। সেই সাথে তিনি দৌলতদিয়া থেকে পরিচালিত ফেসবুক ও ইউটিউব নির্ভর “জনতার বিবেক টিভি’র ” চেয়ারম্যান ও নিজস্ব প্রতিনিধি।

এ মামলার অপর আসামি চ্যানেলটির প্রধান সম্পাদক মেহেদুল হাসান আক্কাছ (৫০)। তিনি গোয়ালন্দ পৌরসভার ১ নং ওয়ার্ডের হাউলি কেউটিল ওলিমদ্দিন পাড়ার মৃত কচমদ আলী সরদার ওরফে কোমেদ আলী সরদারের ছেলে।

মামলার এজাহারে প্রকাশ, গত ১৭ এপ্রিল বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশ “গোয়ালন্দে শতাধিক নারীর কার্ড জব্দের অভিযোগ, খাদ্য সহায়তার নামে ইউপি চেয়ারম্যানের কারসাজি” শিরোনামে একটি অনুসন্ধানী প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়।

আসামীগণ পরস্পর যোগসাজশে জনস্বার্থ সংশ্লিষ্ট দৈনিক যুগান্তর প্রতিনিধির তথ্যবহুল ওই সংবাদটিকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করার অপকৌশল হিসেবে ১৯ এপ্রিলে বিতর্কিত ওই ইউপি চেয়ারম্যানের উন্নয়নমুখী কর্মকান্ড প্রচারণার অজুহাতে একটি প্রতিবেদন ফেসবুক ও ইউটিউবে প্রচার করে। প্রতিবেদনের একটি অংশজুড়ে তারা গণমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদটিকে মিথ্যা বলে প্রতিষ্ঠা করার চেষ্টা করে। সেইসাথে প্রতিবেদনে যুগান্তর প্রতিনিধি শামীম শেখের ছবি বারবার প্রদর্শন ও উৎকোচ গ্রহনের মিথ্যা প্রচারনার মাধ্যমে তাকে সামাজিকভাবে অপমান, অপদস্থ ও হেয়প্রতিপন্ন করার অপচেষ্টা চালায়।
এতে করে গোয়ালন্দ উপজেলায় কর্মরত সাংবাদিক, জনপ্রতিনিধি ও রাজনৈতিক নের্তৃবৃন্দসহ সর্বস্তরের জনগনের মধ্যে তীব্র নিন্দা, ক্ষোভ ও উত্তেজনাকর পরিস্হিতির সৃষ্টি হয়। আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি ঘটারও উপক্রম হয়।

এ অবস্থায় গোয়ালন্দ প্রেসক্লাবের সাংবাদিকরা গত ১ মে শনিবার রাতে এক জরুরী সভার মাধ্যমে ‘জনতার বিবেক টিভি’র অপ-সাংবাদিকতার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান এবং আইনী প্রক্রিয়ায় তাদেরকে মোকাবিলার সর্বসম্মত সিদ্ধান্ত নেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে গত ৩ মে সোমবার রাতে গোয়ালন্দ ঘাট থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে ২০১৮ সালের ২৫/২৯/৩১ ধারায় ওই মামলাটি দায়ের করা হয়।

এ বিষয়ে গোয়ালন্দ ঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল তায়াবীর বলেন, ধৃত আসামী সুজন খোন্দকারকে বুধবার আদালতের মাধ্যমে রাজবাড়ীর কারাগারে পাঠানো হয়েছে। অপর আসামিকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন


এ জাতীয় আরো খবর...
এক ক্লিকে বিভাগের খবর