শনিবার, ১২ জুন ২০২১, ০৭:৩৩ অপরাহ্ন
ঘোষণা:
দেশের প্রতিটি জেলায় সাংবাদিক নিয়োগ চলছে।

কুষ্টিয়ায় পরকীয়া প্রেম ফাঁস; অভিমানে নিজের পুরুষাঙ্গ কাটলেন স্বামী

নিজস্ব প্রতিবেদক / ২৪ বার পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ১০ জুন, ২০২১, ৭:১৫ অপরাহ্ন

কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে চাচাতো শ্বাশুড়ির সাথে পরকীয়া প্রেম ফাঁস হওয়ায় পরিবারের সাথে চলছিল অশান্তি। স্বামী – স্ত্রী দুজন থাকতেন দুকক্ষে। এনিয়ে প্রতিদিনই স্ত্রীর সাথে চলত মান – অভিমান আর ঝগড়াঝাঁটি। এই অভিমানে নিজকক্ষে ধারালো দাউ দিয়ে পুরুষাঙ্গের সিংহভাগ কাটলেন স্বামী।

বুধবার (৯ জুন) রাত সাড়ে ৮ টায় কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলার জগন্নাথপুর ইউনিয়নের বাঁখই মহব্বত গ্রামে এমন চাঞ্চল্যকর ঘটনা ঘটে। আহত মুনতাজ (৪৫) কে উদ্ধার করে প্রথমে কুমারখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। সেখানে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

আহতের পরিবার, এলাকাবাসী ও পুলিশ সুত্রে জানা যায়, মুনতাজের সাথে উপজেলার সদকী ইউনিয়নের কাঁঠালডাঙি গ্রামে তার চাচাতো শ্বাশুড়ির পরকীয়া প্রেম চলছিল। প্রায় মাস দুয়েক পূর্বে বিষয়টি জানাজানি হয়। জানাজানির পর থেকেই পরিবারে চলছিল অশান্তি।

এনিয়ে গত রোববার (৬ জুন) পারিবারিকভাবে বসাবসি হয়। সেখানে মুনতাজ ও চাচাতো স্বাশুড়ি তাদের সম্পর্ক অস্বীকার করে। তবুও স্ত্রী স্বামীর উপর সন্দেহ কমায়নি। ফলে গেল দুইদিন স্বামী – স্ত্রী দুইজন দুকক্ষে বসবাস করতেন। এনিয়েও চলছিল মন মালিন্য, মান অভিযান আর ঝগড়াঝাঁটি। এরই জের ধরে একপর্যায়ে আজ (বুধবার) রাত সাড়ে ৮ টার দিকে নিজকক্ষে ধারালো দাউ দিয়ে পুরুষাঙ্গের সিংহভাগ কাটেন মুনতাজ। এতে অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি।

এরপর পুরুষাঙ্গ কাটার বিষয় টের পেয়ে তাকে কুমারখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসেন স্বজনরা। সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়।

নাম প্রকাশ না করা শর্তে মুনতাজের পরিবারের এক সদস্য বলেন, চাচাতো শ্বাশুড়ির সাথে পরকীয়া প্রেম চলছিল। বিষয়টি জানাজানি হলে পরিবারে অশান্তি সৃষ্টি হয়। এনিয়ে গত রোববার (৬ জুন) দুপক্ষ পারিবারিকভাবে বসাবসি করে। তবুও তার পরিবারে শান্তি ছিলোনা। ফলে স্ত্রীর উপর অভিমান করে ধারালো দাউ দিয়ে নিজেই নিজের পুরুষাঙ্গ কাটেন মুনতাজ।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মোঃ আকুল উদ্দিন বলেন, ধারালো অস্ত্র দিয়ে মুনতাজের পুরুষাঙ্গ কাটা হয়েছে। তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে কুমারখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সোঃকামরুজ্জামান তালুকদার বলেন, পরকীয়া গ্রেমের জেরে দাউ দিয়ে নিজেই পুরুষাঙ্গ কেটেছে। তিনি চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তিনি আরো বলেন, লিখিত কোনো অভিযোগ পায়নি এখনও।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন


এ জাতীয় আরো খবর...
এক ক্লিকে বিভাগের খবর