মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৭:৩২ পূর্বাহ্ন
ঘোষণা:
দেশের প্রতিটি জেলায় সাংবাদিক নিয়োগ চলছে।

মহামারি করোনায় বিভিন্ন সময়ে জনগণের পাশে রিয়াজ মালিথা

নিজস্ব প্রতিবেদক / ১৭৯ বার পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : শনিবার, ২৪ জুলাই, ২০২১, ৫:৩৫ অপরাহ্ন

 

সময়ের সাহসী সন্তান মিরপুর উপজেলার আমলার বিশিষ্ট ব্যবসায়ী, সমাজসেবক ও বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক রিয়াজ মালিথা, করোনা মহামারীর সময়ে জনগণের পাশে থেকে নিয়ে যাচ্ছেন একের পর এক জনকল্যাণমুখী পদক্ষেপ।
করোনার প্রাদুর্ভাবের প্রথম থেকেই আমলা তথা মিরপুরের সাধারণ জনগনের প্রয়োজনে পাশে থেকেছেন, কখনো ত্রাণ হাতে দাঁড়িয়েছেন, কখনো জনসচেতনতায় রাস্তায় নেমেছেন, কখনো অসুস্থ রুগীদের চিকিৎসার্থে সাহায্যের হাত বাড়িয়েছেন। যখন যে ভাবে সম্ভব সেই ভাবে মানুষের পাশে থাকছেন একজন মানবপ্রেমী হিসেবে, একজন অসহায়ের বন্ধু হিসেবে। বর্তমান চলমান কঠোর লকডাউনের মধ্যেও শুধু শুধু ঘরে বসে না থেকে এই কঠিন সময়েও সোস্যাল মিডিয়ার মাধ্যমেও জনসাধারণের মাঝে চালিয়ে যাচ্ছেন করোনা বিষয়ক সচেতনতা মূলক কার্যক্রম, গত ২৩শে জুলাই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেজবুকের লাইভে এসে প্রায় ৫০ মিনিটের এক অবিস্মরণীয় বক্তব্যের মাধ্যমে তুলে ধরার চেষ্টা করছে বর্তমান করোনা পরিস্থিতিকে যা এখন আমলা তথা মিরপুরের সোস্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। ফেজবুক লাইভে রিয়াজ মালিথার বক্তব্যে ভেসে ওঠে একজন সমাজ সচেতন ব্যক্তির রুপ,এখানে একজন জনদরদী মানুষ হিসেবে করোনা মহামারীর এ সময়ে সকলকে ঘরে থাকার আহবান জানান, নিজের জায়গা থেকে নিজেকে স্বাস্থ্য সচেতন হওয়ার তাগিদ দেন , বার বার স্বরণ করিয়ে দেন, জননেত্রী ও দেশরত্ন বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কথা গুলো, তিনি আরও স্বরণ করিয়ে দেন কুষ্টিয়ার মেহনতী মানুষের নেতা,কুষ্টিয়ার উন্নয়নের রুপকার বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহাবুব-উল আলম হানিফ ভাইয়ের কথা,যারা চান বাংলার প্রতিটি মানুষ নিরাপদে থাকুক,করোনা থেকে মুক্ত থাকুক,এ লক্ষে তারা সার্বক্ষণিক কাজ করে যাচ্ছেন, বিশেষ করে জননেতা মাহাবুব-উল আলম হানিফ ভাই কুষ্টিয়ার করোনা পরিস্থিতির প্রতি রেখেছেন সজাগ দৃষ্টি, তার নেতৃত্বে কুষ্টিয়ার আওয়ামী লীগ, ছাত্র লীগ সহ স্বাধীনতার স্বপক্ষের শক্তিগুলো ঐক্যবদ্ধ ভাবে করোনা মহামারীতে মানুষের জন্য কাজ করে যাচ্ছেন, সেই সাথে কুষ্টিয়ায় কর্মরত সকল চিকিৎসক, নার্স,জেলা প্রশাসন, জেলা পুলিশ ও কুষ্টিয়া জেলায় কর্মরত সকল সাংবাদিকবৃন্দ।তিনি আরও বলেন, বিএনপি করোনা মহামারীর সময় জনগণের পাশে দাড়াই নি,এটা ঐতিহাসিক কারনেই তারা দাড়ায়নি,কেননা বাঙ্গালি জাতির ইতিহাসে কোনো সংকট কালে তারা ছিলো না,সেই ৪৮,৫২,৬৬,৬৯ বা ৭১ কোনো সংকটেই জিয়া সামনে আসেনি, হটাৎ করেই বঙ্গবন্ধু র দেয়া স্বাধীনতার ঘোষণা পত্র শুধু মাত্র পাঠ করেই স্বাধীনতার ঘোষকের দাবিদার হয়ে যায়, অথচ তারা কোনো দিনই বাঙ্গালী জাতির দুর্দিনে জাতিকে বাঁচাতে আসেনি,এটা ঐতিহাসিক ভাবে সত্য। জাতির দুর্দিনে জাতিকে রক্ষার ভার কাঁধে তুলে নিয়েছে আওয়ামী লীগ, তাই আজো জাতির দূর্দিনে আওয়ামী লীগ জনগণের পাশে আছে। ঘটনা প্রসঙ্গে রিয়াজ মালিথা তার বক্তব্যে যে সমস্ত আওয়ামী লীগ নেতাদের সাথে চিন্হিত মাদক ব্যাবসায়ী, সন্ত্রাসী ও স্বাধীনতা বিরোধী রাজনৈতিক দলের নেতা কর্মীরা উঠাবসা করে নিজেদের সমাজে প্রতিষ্ঠিত করার চেষ্টা করছে,সে সব আওয়ামী লীগের নেতাদের উদ্দেশ্য করে বলেন, আপনারা তাদের পরিহার করুন, এসকল মাদক ব্যাবসায়ী, সন্ত্রাসী ও স্বাধীনতা বিরোধীরা দেশ ও জাতির শত্রু, খেয়াল রাখবেন এরা যেন আপনাদের মাধ্যমে সমাজে প্রতিষ্ঠিত হতে না পারে, এদেরকে এখনই ত্যাগ করুন নতুবা তাদের সংশোধন করার জন্য আইনের হাতে তুলে দিন।
আমলার জনপ্রিয় উদীয়মান আওয়ামী নেতা ও বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক রিয়াজ মালিথার এ আবেগঘন কথা গুলো অনেকের অন্তরে দাগ কেটেছে, সোস্যাল মিডিয়ায় রিয়াজ মালিথার জন্য সবাই দোয়া করেছেন, তিনি যেন মানুষের পাশে থেকে মানুষের সেবা করে যেতে পারেন।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন


এ জাতীয় আরো খবর...
এক ক্লিকে বিভাগের খবর