বুধবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২১, ০৫:৪০ পূর্বাহ্ন
ঘোষণা:
দেশের প্রতিটি জেলায় সাংবাদিক নিয়োগ চলছে।

আজ মীর মশাররফ হোসেনের ১৭৪তম জন্মবার্ষিকী

নিজস্ব প্রতিবেদক / ৪৪ বার পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : শনিবার, ১৩ নভেম্বর, ২০২১, ৩:০৯ অপরাহ্ন
gonosomoy

বাংলা সাহিত্যের বিখ্যাত ঔপন্যাসিক, ‘বিষাদ সিন্ধু’ খ্যাত কথাশিল্পী মীর মশাররফ হোসেনের ১৭৪তম জন্মবার্ষিকী আজ।

তিনি ছিলেন একাধারে ঔপন্যাসিক, নাট্যকার ও প্রাবন্ধিক। তিনি বাংলা ভাষার অন্যতম প্রধান গদ্যশিল্পী ও বাঙালি মুসলমান সাহিত্যিকদের পথিকৃৎ। কারবালার যুদ্ধকে উপজীব্য করে রচিত ‘বিষাদ সিন্ধু’ তাঁর সবচেয়ে জনপ্রিয় সাহিত্যকর্ম।

মীর মশাররফ হোসেন রচিত নাটক “জমিদার দর্পণ” বিখ্যাত বাংলা নাটকগুলোর অন্যতম।

মীর মশাররফ হোসেন তৎকালীন বৃটিশ ভারতে (বর্তমান বাংলাদেশ) কুষ্টিয়া জেলার কুমারখালি উপজেলার চাঁপড়া ইউনিয়নের লাহিনীপাড়া গ্রামে ১৮৪৭ সালের ১৩ নভেম্বর জন্মগ্রহণ করেন। এখনো সেখানে তাঁর বাস্তুভিটা রয়েছে।

তাঁর শিক্ষাজীবন কাটে প্রথমে কুষ্টিয়ায়, পরে তৎকালিন ফরিদপুরের পদমদীতে ও শেষে কৃষ্ণনগরের বিভিন্ন বিদ্যালয়ে। তাঁর জীবনের অধিকাংশ সময় ব্যয় হয় ফরিদপুরের নবাব এস্টেটে চাকরি করে। তিনি কিছুকাল কলকাতায়ও বসবাস করেন।

১৯১১ সালের ১৯ ডিসেম্বর রাজবাড়ির পদমদীতে মৃত্যুবরণের পর এখানেই তাঁকে সমাহিত করা হয়। বাংলা একাডেমির তত্ত্বাবধানে এখানে নির্মিত হয়েছে মীর মশাররফ হোসেন স্মৃতিকেন্দ্র। ২০০১ সালের ১৯ এপ্রিল তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন। বাংলা একাডেমি এ কেন্দ্রের তত্ত্বাবধানের জন্য একজন সহকারী পরিচালকসহ ৫ জন কর্মচারী নিয়োগ করেছে।

মীর মশাররফ হোসেন তার বহুমুখী প্রতিভার মাধ্যমে উপন্যাস, নাটক, প্রহসন, কাব্য ও প্রবন্ধ রচনা করে আধুনিক যুগে মুসলিমদের রচিত বাংলা সাহিত্যে সমৃদ্ধ ধারার প্রবর্তন করেন।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন


এ জাতীয় আরো খবর...
এক ক্লিকে বিভাগের খবর